৬০,০০০ টাকা পর্যন্ত ৬০০%
গ্রহণ

প্যারিম্যাচ অনলাইন পূর্ণাঙ্গ রিভিউ ২০২৩

4.5/5
থাকে ১০০% পর্যন্ত ওয়েলকাম বোনাস টাকায় ২০,০০০
সুবিধা
  • বাংলাদেশিদের জন্য সুবিধাজনক পেমেন্ট মেথড যেমন বিকাশ ও নগদ
  • ক্রিকেটের বাজিতে চমৎকার অডস
  • বাংলাদেশি খেলোয়াড়দের জন্য বিশেষ বোনাস
  • দ্রুত টাকা উত্তোলন
  • ২৫ টিরও বেশি ধরনের খেলাধুলায় বাজি ধরা যায়
অসুবিধা
  • ভেরিফিকেশনের নীতি বেশ কড়া, এবং ভেরিফিকেশন তাৎক্ষণিকভাবে হয়না। একটু সময় লাগে
  • কিছু দেশ উল্লেখযোগ্য বোনাস ও কমিশন পায় না

PariMatch 1994 সালে তার যাত্রা শুরু করে এবং এখন সবচেয়ে বড় এবং সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য অনলাইন বেটিং প্ল্যাটফর্মগুলির মধ্যে একটি। ইন্টারনেটের জন্য ধন্যবাদ, বাংলাদেশীরা এখন খেলতে পারে একটি সেরা বাজি এ। প্যারিম্যাচ অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএসের জন্য অ্যাপ সমর্থন করে।

ফলস্বরূপ, বাংলাদেশে বসবাসকারী যে কেউ এই প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে তাৎক্ষণিকভাবে বেটিং, লাইভ ইভেন্ট, ভার্চুয়াল স্পোর্টস এবং বিভিন্ন লাইভ গেমে অংশগ্রহণ করতে পারবেন যতক্ষণ না তাদের স্মার্টফোনে ইন্টারনেট সংযোগ থাকে।

parimatch bangladesh

 

বিশ্বাসযোগ্যতা

প্যারিম্যাচ একটি সাইপ্রাসভিত্তিক প্ল্যাটফর্ম যার সদরদপ্তর সাইপ্রাসের লিমসলে। প্ল্যাটফর্মটির রয়েছে গ্যাম্বলিং রেগুলেটরি কমিশনের ইস্যুকৃত কুরাকাও ই-গেমিং লাইসেন্স যার নম্বর 1668-JAZ. বর্তমানে প্যারিম্যাচ পৃথিবীর বহু দেশের মত বাংলাদেশেও বৈধ পন্থায় তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

বাংলাদেশীরা এই প্লাটফর্ম থেকে সম্পূর্ণ নিরাপদভাবে অর্থ উত্তোলন করতে পারেন। প্লাটফর্মটি প্রতিদিন ২৪ ঘণ্টা কাস্টমার পরিষেবা প্রদান করে থাকে, ফলে অনলাইন আপনি যদি অনলাইন জুয়ায় অনভিজ্ঞ হয়ে থাকেন, কিংবা যদি কোন বিষয় বুঝতে আপনার সমস্যা হয়, তবে আপনি তাৎক্ষণিকভাবে সহায়তা পেতে পারেন।

 

প্যারিম্যাচ ওয়েলকাম বোনাস

প্যারিম্যাচ দিয়ে থাকে ১০০% পর্যন্ত ওয়েলকাম বোনাস, বাংলাদেশি টাকায় ২০,০০০ টাকা পর্যন্ত হতে পারে। এই ওয়েলকাম বোনাস গ্রহণের প্রক্রিয়াটা খুব সহজ:
১. প্যারিম্যাচে সাইন আপ করুন।
২. আপনার ফোন নাম্বার দিন।
৩. কমপক্ষে ৩০০ টাকা জমা করুন।
৪. বিশেষ প্রোমো কোডটি নিন।
উত্তোলনের ৪৮ ঘন্টার মধ্যে আপনার বোনাস অ্যাকাউন্টে অর্থ জমা হবে। ওয়েলকাম বোনাস পেতে হলে আপনাকে বাজি ধরতে হবে। মূল শর্তগুলো হচ্ছে:
১. বোনাসের পরিমাণ অর্থ ১০ বার রোলওভার হতে হবে।
২. বেটিংয়ের অড থাকতে হবে কমপক্ষে ১.৫০।
৩. বেটিং হতে হবে সিঙ্গেল এবং এক্সপ্রেস।
৪. নিবন্ধনের ৭ দিনের মধ্যে এই শর্ত পূরণ হতে হবে।
বোনাস পয়েন্টের প্রমোশনে অংশগ্রহণের আগে নিয়মের খুঁটিনাটিগুলোও মাথায় রাখুন:

  • যারা নতুন এবং যাদের কেবল একটা গেম প্রোফাইল রয়েছে, তারাই কেবল প্রমোশনে অংশগ্রহণ করতে পারবে।
  • একটা আইপি অ্যাড্রেস, ইমেল এবং লেনদেনের অ্যাকাউন্টে কেবল একবারই বোনাস পাওয়া যাবে।
  • যদি কোন খেলোয়াড় প্রমোশনের নিয়ম ভঙ্গ করে, তবে প্যারিম্যাচ ওই খেলোয়ারড়র বোনাস একাউন্ট বাতিল করে দিতে পারে।
  • বোনাস পেতে প্রোমো কোড ব্যবহার আবশ্যক নয়। প্রথমবার কমপক্ষে ৩০০ টাকা জমা দিলেই আপনি প্রমোশনে অংশগ্রহণ করেছেন বলে ধরে নেওয়া হবে।
  • প্রমোশনে শর্ত পূরণ হওয়ার এক থেকে দুই দিনের মধ্যে বোনাসের টাকা প্রদান করা হয়।
  • প্রমোশনে শর্ত পূরণ হওয়ার এক থেকে দুই দিনের মধ্যে বোনাসের টাকা প্রদান করা হয়।

 

অন্যান্য অফার ও প্রমোশন

প্যারিম্যাচ প্ল্যাটফর্মের নিয়মিত ব্যবহারকারীরা বেশ কিছু অন্যান্য বোনাস ও প্রমোশন উপভোগ করে থাকেন। প্ল্যাটফর্মটিতে আকর্ষণীয় অফারগুলোর মধ্যে রয়েছে:

  • টোটো জ্যাকপট: প্যারিম্যাচের সবচেয়ে আকর্ষণীয় প্রমোশনগুলোর একটি হচ্ছে টোটো জ্যাকপট। সবচেয়ে বড় স্পোর্টিং ইভেন্টগুলোতে এই অফারটি করা হয়। বাজি ধরা হয় ইভেন্টগুলোর ফলাফলের উপর।
  • প্যারিম্যাচ কোয়েস্ট: এই বোনাসটি বিশেষত প্যারিম্যাচ প্ল্যাটফর্মের নিয়মিত ব্যবহারকারীদের জন্য। বিশেষ বিশেষ খেলার টুর্নামেন্ট উপলক্ষে এই বোনাস দেওয়া হয়। উদাহরণস্বরূপ, আইপিএল লীগে বাজি ধরে শর্ত পূরণের মাধ্যমে আপনি ক্যাশব্যাক অফার পেতে পারেন।
  • লাইভ ক্যাসিনো ক্যাশব্যাক: ক্যাসিনোপ্রেমীদের এই বোনাসটি দিয়ে থাকে প্যারিম্যাচ। আপনি যদি পোকার, ব্ল্যাকজ্যাক, ব্যাকারাট প্রভৃতি খেলা খেলে থাকেন, তবে সপ্তাহ শেষে আপনি ১০% রিফান্ড চাইতে পারেন।
  • স্পোর্টস ও ক্যাসিনো টুর্নামেন্ট: এই অফারটি পেতে হলে আপনাকে কোন খেলার উপর বাজি ধরতে হবে, পয়েন্ট অর্জন করতে হবে, এবং পুরস্কারের জন্য প্রতিযোগিতা করতে হবে।
  • ক্যাসিনো বোনাস + ২৫%: এই প্রমোশন অনুযায়ী আপনি ২৫% ক্যাশব্যাক পেতে পারেন। একজন খেলোয়াড় এই অফারটি সর্বোচ্চ ৫ বার পেতে পারে।

 

প্যারিম্যাচ প্লাটফর্মে রেজিস্ট্রেশনের প্রক্রিয়া

parimatch registration
প্যারিম্যাচের নিবন্ধন প্রক্রিয়া অত্যন্ত সহজ। আপনি প্যারিম্যাচের অ্যাপ ব্যবহার করে কিংবা যে কোন ব্রাউজার ব্যবহার করে এই প্লাটফর্মে নিবন্ধন করতে পারেন। উভয় ক্ষেত্রেই নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন:
১. Sign Up বাটনে ক্লিক করুন।
২. আপনার ফোন নাম্বার দিন। আসল ফোন নাম্বার দেবেন, কারণ এই নাম্বারটিই ব্যবহৃত হবে আপনার অ্যাকাউন্ট নিশ্চিত করতে।
৩. একটা পাসওয়ার্ড প্রবেশ করান এবং সেটা নিশ্চিত করুন। এমন পাসওয়ার্ড বানাবেন না যেটা সহজেই কেউ অনুমান করতে পারে।
৪. Accept বাটনে ক্লিক করে প্ল্যাটফর্মের শর্তাবলি (Terms and conditions) শর্তাবলী গ্রহণ করুন।
৫. Up বাটনে ক্লিক করুন।
৬. মোবাইলে প্রাপ্ত কোড ব্যবহার করে আপনার ফোন নাম্বারটি ভেরিফাই করুন।
এখন আপনি ডিপোজিট করার জন্য প্রস্তুত!

 

টাকা জমা ও উত্তোলন

প্যারিম্যাচ-এ নিরাপদ ও সুবিধাজনক উপায়ে বাংলাদেশ থেকে টাকা জমা ও উত্তোলন করা যায়। ডিপোজিট অপশনগুলোর মধ্যে রয়েছে বিকাশ, নগদ, ক্র্রিল, লাইট কয়েন, ইথারিয়াম, বিটকয়েন ক্যাশ, এবং অ্যাসট্রো পে।

এই প্লাটফর্মে টাকা জমাদানের মত উত্তোলনও দ্রুত ও সহজ। প্যারিম্যাচ টাকা উত্তোলনের জন্য কোন ফি নেয় না, তবে মাস্টারকার্ড ও ভিসা কার্ড ব্যবহারের মাধ্যমে টাকা উত্তোলন করলে প্লাটফরমটি ১.৭% থেকে ২% পর্যন্ত ফি নিয়ে থাকে।

bkash

এই স্থানীয় ডিজিটাল পেমেন্ট পদ্ধতি প্রতিটি বিকাশ বেটিং ডেভেলপমেন্টে অর্থ স্থানান্তর সহজ এবং দ্রুত করে। লেনদেন করতে আপনার শুধুমাত্র ফোন নম্বর প্রয়োজন। লেনদেন ফি কম, এই বিকল্পটি একটি ভাল পছন্দ করে!

নিচের ছকে জমা ও উত্তোলনের সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন পরিমাণ, কমিশনের হার ও উত্তোলনের সময় দেখানো হলো:

জমাদান ও উত্তোলনের মাধ্যম

সর্বনিম্ন জমা (টাকা)

সর্বোচ্চ জমা (টাকা)

সর্বনিম্ন উত্তোলন (টাকা)

কমিশনের হার

উত্তোলনে যেমন সময় লাগে

বিকাশ

৫০০

২০০,০০০

৫০০

০%

১৫ মিনিট থেকে ২৪ ঘন্টা

নগদ

৫০০

২০০,০০০

৫০০

১৫ মিনিট থেকে ২৪ ঘন্টা

নেটেলার

৫০০

৯০০,০০০

৫০০

০%

তাৎক্ষণিক

মাস্টারকার্ড

৩০০

১০০,০০০

৫০০

১.৭%

৩ থেকে ৫ দিন

পে টি এম

৩০০

১০০,০০০

৫০০

০%

১ থেকে ২ ঘন্টা

স্ক্রিল

৪৯১

৮৮৩,৭৩৭

৫০০

০%

২ থেকে ৩ ঘন্টা

মাচ বেটার

৩০০

১০০,০০০

১,০০০

০%

১২ থেকে ২৪ ঘন্টা

ব্যাংক

৫৫১

৫০,০০০

১,০০০

০%

১২ থেকে ৭২ ঘন্টা

বিটকয়েন ক্যাশ

২৯২

২০০,০০০

১,০০০

০%

১৫ মিনিট থেকে ২৪ ঘন্টা

ভিসা

৩০০

১০০,০০০

১,০০০

১.৭%

৩ থেকে ৫ দিন

জেটন

১০০০

কোনো সর্বোচ্চ সীমা নেই

১,০০০

০%

১ থেকে ২ ঘন্টা

বিটকয়েন

৩৬,৯৮৫

২০০,০০০

১,০০০

০%

১৫ মিনিট থেকে ২৪ ঘন্টা

ইথারিয়াম

২,৬৬৮

২০০,০০০

১,০০০

০%

১৫ মিনিট থেকে ২৪ ঘন্টা

লাইটকয়েন

১১৮

২০০,০০০

১,০০০

০%

১৫ মিনিট থেকে ২৪ ঘন্টা

 

প্যারিম্যাচে স্পোর্টস এর উপর বাজি ধরা

স্পোর্টস ব্যাটিংয়ের জন্য প্যারিম্যাচ একটি আদর্শ প্লাটফর্ম যেখানে আপনি আপনার পছন্দের সকল খেলাধুলার উপর বাজি ধরতে পারবেন। নিম্নলিখিত খেলাগুলোর উপর বাজি ধরা যায়:

  • ক্রিকেট
  • ফুটবল
  • বাস্কেটবল
  • ভলিবল
  • আইস হকি
  • কাবাডি
  • টেনিস
  • টেবিল টেনিস
  • হ্যান্ডবল
  • ফ্লোরবল
  • ফিল্ড হকি
  • বক্সিং

এসব খেলাধুলা ছাড়াও কয়েক প্রকার অনলাইন ভিত্তিক খেলার উপরেও বাজি ধরার সুযোগ রয়েছে এই প্লাটফর্মে।

 

প্যারিম্যাচ লাইভ বেটিং

চলমান উল্লেখযোগ্য খেলার ইভেন্টগুলোর ম্যাচ শিডিউল ও লাইভ স্কোর প্রদর্শন করে প্যারিম্যাচ। প্লাটফর্মটিতে আপনি বাজি ধরতে পারেন আইপিএল, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, বিপিএল, ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ, আবুধাবি টি টেন লিগ, প্রো কাবাডি লিগ, বিগ ব্যাশ লিগ, বিগ ব্যাশ লিগ এস আর এল, এবং পাকিস্তান সুপার লিগ এস আর এল এর মতো ইভেন্টগুলোতে।

প্যারিম্যাচে লাইভ ক্যাসিনো গেমের মধ্যে রয়েছে আন্দার বাহার, তিন পাত্তি, অনলাইন রুলেট, ক্রেজি টাইম, লাকি সেভেন, বোর্ড গেম লুডুি এবং সত্তা মটকা।

 

প্যারিম্যাচের অডস এবং মার্কেটসমূহ

প্যারিম্যাচ প্লাটফর্মটি ব্যবহার করে প্রতি মাসে হাজার হাজার প্রি-ইভেন্ট মূল্যায়ন করা যায়। এখানে ২৫ টিরও বেশি স্পোর্টস এর জন্য এসব ইভেন্ট হয়ে থাকে। আপনি যদি একজন ক্রিকেটপ্রেমী হয়ে থাকেন, তাহলে প্যারিম্যাচের মাধ্যমে বাজি ধরা আপনার জন্য সবচেয়ে সুবিধাজনক হবে। শুধু আইপিএল ম্যাচের মতো বড় ইভেন্ট নয়, অনেক অপেক্ষাকৃত ছোট ইভেন্টেও এখানে বাজি ধরা যায়। ক্রিকেটের জন্য যেসব অতিরিক্ত মার্কেট রয়েছে সেগুলো হচ্ছে:

  • ম্যাচে সিক্সের সংখ্যা
  • সিরিজ স্কোর
  • রান আউটের সংখ্যা

মার্কেটগুলোর গড় রেটিং হচ্ছে ৭.৯। অডস এর জন্য পেআউট হচ্ছে ৯৩%, যেটি বাংলাদেশে কার্যক্রম পরিচালনা করা অন্যান্য বুকমেকারের চেয়ে বেশি। অডস বহুলাংশে নির্ভর করে ইভেন্টের আকার ও লিগের ধরণের উপর। অডস এর গড় হচ্ছে ৮.১। ফুটবল ইভেন্টে অডস ৯৫.৪%, বাস্কেটবলে ৯৪.৯% এবং টেনিসে ৯৫.১%।.

এই বুকমেকারদের চেষ্টা করুন

প্যারিম্যাচের সামগ্রিক মূল্যায়ন

সাম্প্রতিক সময়ে প্যারিম্যাচ সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য বুকমেকারগুলোর একটি। আকর্ষণীয় ওয়েলকাম বোনাস ও চমৎকার সব অফারের কারনে শুরু থেকেই এই প্লাটফর্মটি অনলাইন ক্যাসিনোপ্রেমীদের মধ্যে সাড়া ফেলতে সক্ষম হয়েছে।

লাইভ ক্রিকেটে বাংলাদেশ থেকে টাকায় বাজি ধরার জন্য প্যারিম্যাচ হচ্ছে সবচেয়ে ভালো প্ল্যাটফর্ম। বাজি ধরার যাবতীয় সুবিধা এবং লোভনীয় বোনাস প্রদান ছাড়াও প্যারিম্যাচ দিচ্ছে টাকা জমা ও উত্তোলনের বহু অপশন।

প্যারিম্যাচচর ইউজার ইন্টারফেস চমৎকার। ফলে আপনার যদি অনলাইন বেটিং এ কোন অভিজ্ঞতা নাও থাকে, তাহলেও সবকিছু স্বতঃস্ফূর্তভাবে বুঝে যাবেন।

এখানে অন্যান্য প্রবন্ধ পড়ুন

MostBet অ্যাপ 2023 স্বাগতম বোনাস

bKash

বাংলাদেশে নেটেলার বেটিং সাইট

খেলোয়াড়দের পর্যালোচনা
দেখানোর জন্য কোন পর্যালোচনা নেই.
আপনার প্রতিক্রিয়া জানান
আপনার রেটিং:
FAQ. প্যারিম্যাচ বিষয়ক প্রশ্ন ও উত্তর
  • আমি কি প্যারিম্যাচে আমার বাজি বাতিল করতে পারি?

    বাজি ধরে ফেলার পর সেটা বাতিল করা বেশ জটিল একটা প্রক্রিয়া, তাই বাজি ধরার আগে ভালোভাবে ভেবে নিন আপনি বাজিটা ধরতে চান কিনা

  • প্যারিম্যাচে সর্বনিম্ন কত টাকা ডিপোজিট করতে হয়?

    বিকাশ কিংবা নগদ ব্যবহার করলে আপনাকে সর্বনিম্ন ৫০০ টাকা ডিপোজিট করতে হবে। মাস্টারকার্ড কিংবা ভিসা ব্যবহার করলে ডিপোজিটের সর্বনিম্ন পরিমাণ ৩০০ টাকা।

  • প্যারিম্যাচ থেকে টাকা তুলতে কত সময় লাগে?

    সময় নির্ভর করে টাকা উত্তোলনের মাধ্যমের উপর। আপনি যদি বিকাশ কিংবা নগদ ব্যবহার করেন, তাহলে টাকা আসতে সময় লাগবে ১৫ মিনিট থেকে ২৪ ঘন্টা। মাস্টারকার্ড কিংবা ভিসা ব্যবহার করলে টাকা আসতে সময় লাগবে ৩ থেকে ৫ দিন।

  • প্যারিম্যাচ কি নির্ভরযোগ্য?

    হ্যাঁ, বাজি ধরার জন্য প্যারিম্যাচ একটি নির্ভরযোগ্য সাইট। ১৯৯৪ সাল থেকে প্যারিম্যাচ দাঁড়িয়ে আছে বিশ্বব্যাপী অনলাইন ক্যাসিনোপ্রেমীদের নির্ভরতার প্রতীক হিসেবে। লাইভ খেলাধুলার উপর বাজি ধরার জন্য অন্যতম শ্রেষ্ঠ প্ল্যাটফর্ম এটি।